• NIFT | NIET | NPI | Sonargaon University Admission
  • Bangladesh Malaysia Study Centre Ltd (BMSCL)
  • Institute of Science and Technology | Diploma in Engineering
  • Online Advertisement | 6
  • Fee Pay | Credit Card Service
  • call for advertisement
কনাডিয়ানে প্রথম জাতীয় আইসিটি দিবস-২০১৭ উদযাপন ঢাবি থেকে ৭৬ জনের পিএইচ.ডি. ও এম.ফিল. ডিগ্রি লাভ ঢাবির সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. সাদেকা হালিম ব্রাক ইউনিভার্সিটির ১২ সমাবর্তন অনুষ্ঠিত ঢাবির ৫ শিক্ষার্থীর 'সারথি বৃত্তি' লাভ সবুজ ক্যাম্পাসের বিশ্ব র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের শীর্ষে ড্যাফোডিল ডুয়েটে জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস উদযাপন ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ঢাবির দ্বিতীয় ক্যাম্পাস হবে পূর্বাচলে জাবিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ৪দিন ব্যাপী আবৃত্তি উৎসব For Advertisement Call Us @ 09666 911 528 or 01911 640 084 শিক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে সহযোগিতা নিতে ও এডু আইকন ফোরামে যুক্ত হতে ক্লিক করুন Career Opportunity at Edu Icon: Apply Online চায়নায় স্নাতকোত্তর লেভেল এ সম্পূর্ণ বৃত্তিতে পড়াশুনা করতে যোগাযোগ করুন: ০১৬৮১-৩০০৪০০ | ০১৭১১১০৯ ভর্তি সংক্রান্ত আপডেট খবরাখবর এর নোটিফিকেশন পেতে ক্লিক করুন চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে Niet Polytechnic-Dhaka পলিটেকনিকে ভর্তি চলছে All trademarks and logos are property of their respective owners. This site is not associated with any of the businesses listed, unless specifically noted.
  • Digital Marketing

বর্তমান বিসিএস প্রবণতা এবং এর প্রস্তুতি

Nazmul Alam Udoy | April 30, 2017
বিসিএস প্রস্তুতিতে শিক্ষার্থীরা

বিসিএস প্রস্তুতিতে শিক্ষার্থীরা

এই লেখাটি মুলত তাদের জন্য যারা অন্তত এক বছর পর বিসিএস প্রিলিমিনারিতে অংশ নেওয়ার কথা ভাবছেন। আসলে বিসিএস পরিক্ষার পড়াশোনার পর্যায় দুইটি, একটি হল স্বল্পমেয়াদী গাইড বই ভিত্তিক পড়া। যার জন্য পরীক্ষার শুরুর আগের ২-৩ মাস বরাদ্দ রাখলেই চলবে।
অন্যটি হল দীর্ঘমেয়াদি প্রস্তুতি, যেটাকে আমরা সাধারণ জ্ঞান বলে থাকি, এটার জন্য কিন্তু আপনাকে অনেক সময় দিতে হবে।

বর্তমানে সবার বিসিএস এর প্রতি যে তীব্র ঝোঁক তাতে খুব ভাল সাধারন জ্ঞান ছাড়া জেনারেল ক্যাডার হওয়া সম্ভব নয়। অথচ আমরা দেখি ৯০ ভাগ ছেলেমেয়ে গাইড ভিত্তিক পুরাতন বছরের প্রশ্নপত্রের উপর আলোচনা সম্পর্কিত বিষয়গুলো বছরের পর বছর পড়তে থাকে। একজন নিরক্ষর মানুষকে যেমন হুট করে দশম শ্রেণীর বই পড়িয়ে এসএসসি পাশ করানো সম্ভব নয় তেমন সাধারন জ্ঞান পরিষ্কার না হলে যতই গাইড পড়া হোক, প্রিলি রিটেন পার হলেও শেষ পর্যন্ত ক্যাডার হওয়া সম্ভব নয়।

কিভাবে কিভাবে সাধারন জ্ঞান এর উন্নতি করা যায় তা আমি আমার মত করে বলব, তার আগে একটা কথা বলে রাখি, আমাদের পড়াশোনা যেন শুধু প্রিলিমিনারি ভিত্তিক না হয়। কারন প্রিলি-রিটেন এর মাঝে মাত্র ৩-৪ মাস সময় থাকে, এত কম সময়ে বিশাল সিলেবাসের অনেকগুলো বিষয় কোনমতেই শেষ করা সম্ভব নয়। তাই অভিজ্ঞ কারো কাছ থেকে রিটেনের সিলেবাস এবং প্রিলি-রিটেনের মিল কোথায় তা জেনে নিয়ে পড়া শুরু করতে হবে।
সাধারণ জ্ঞান এর উন্নতির জন্য আপনাদের প্রতি আমার কিছু পরামর্শ:
১) প্রথমেই ৩৫-৩৭ বিসিএসের প্রিলি, রিটেনের প্রশ্নগুলো ভাল করে দেখে নিন। তাহলে পরবর্তীতে যেসব বই পড়বেন তার কোন অংশ বেশি গুরুত্বপূর্ণ তা নিজেই বুঝতে পারবেন।
২) শুনে অবাক হবেন যে রিটেন পরীক্ষায় যদি ১২০০০ এর মধ্যে ৬০০০ পরীক্ষার্থী ফেল করে তো তার মধ্যে ৪০০০ই ফেল করে ইংলিশে। সুতরাং ইংলিশে কতটা দক্ষ হতে হবে বুঝতেই পারছেন।
• প্রথমেই এইচএসসি লেভেলের গ্রামারটা ঝালিয়ে নিন, নিজে উচ্চ মাধ্যমিকে যে বইটা পড়েছিলেন সেটা আগে পড়ুন। এরপর English for Competitive Exam/Saifurs/Advance এর মত বইগুলো পড়তে পারেন।
• নিয়মিত ইংরেজি সংবাদপত্র পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন, প্রথমে অনেক অপরিচিত শব্দ সামনে আসলেও একমাস পর দেখবেন সব আপনার পরিচিত!
• একটা ভোকাবলারি বইয়ের আগাগোড়া পড়ে ফেলুন সিনোনিম/এন্টোনিম সহ। মনে রাখবেন, সমমানের ছাত্র একজন জানে আরেকজন জানেনা, দুজনের মধ্যে রিটেনে টোটাল নাম্বারে গিয়ে পার্থক্য দাঁড়াবে অন্তত ৩০।
• সাহিত্য বিষয়টা আমি পরীক্ষার ৩-৪ মাস আগে পড়তেই আগ্রহী, খুব বেশি সময় এতে দেওয়ার দরকার নেই।
৩) বাংলা ব্যাকরণ ও সাহিত্য কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে পড়তে হবে।
• প্রথমে ৯ম-১০ম শ্রেণির বইটা খুব ভাল করে শেষ করুন, আর ভুল-শুদ্ধির অধ্যায় টুকু এইচএসসি লেভেলের বই থেকে পড়তে হবে।
• লাল-নীল দীপাবলি বইটা খুব মন দিয়ে পড়ুন।
সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ যে কাজটি আপনাকে করতে হবে তা হল বাংলা সাহিত্যের গুরুত্বপূর্ণ গোটা বিশ নাটক-উপন্যাস পড়তে হবে, সরাসরি পড়া সম্ভব না হলে কাহিনি এবং চরিত্র সম্পর্কে ভালভাবে জেনে নিন। এতে আপনার প্রিলি+ রিটেনের বাংলা সাহিত্যের ৩০ মার্কস + গ্রন্থ সমালোচনার ১৫ মার্কস + ভাইভার প্রস্তুতি শেষ হবে।
বাজারের যেকোন গাইড বই থেকে কোন কবি সাহিত্যিক কি কি লিখেছেন তা পড়ুন ধীরে ধীরে কিন্তু বার বার (আমি প্রফেসরস এর রিটেনের বাংলা গাইডটা পছন্দ করি)।
৪) ক্লাস ৬-১০ এর গনিত বইয়ের অংক গুলো প্রাকটিস করুন প্রথমে। এরপর ৯ম-১০ম শ্রেণির উচ্চতর গণিত অংক গুলো অবশ্যই করবেন, কারন এখন রিটেনে বেশিরভাগ অংক আসে উচ্চতর গনিত থেকে, আর যাদের ব্যাকগ্রাউন্ড আর্টস/কমার্স তারা কিন্তু কোনভাবেই রিটেনের আগের ৩-৪ মাসে উচ্চতর গণিত শেষ করতে পারবেন না।
মানসিক দক্ষতার জন্য রিটেনের মানসিক দক্ষতার যেকোন প্রকাশনীর একটি গাইড লক্ষ্য করুন, দু-দিনেই দক্ষ হয়ে যাবেন।
৫) সাধারন জ্ঞানের জন্য ৯ম-১০ম শ্রেণির পৌরনীতি, অর্থনীতি, ভূগোল, বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচিতি, বিশ্বসভ্যতার ইতিহাস বইগুলো পড়ুন। জাতির পিতার লেখা দুইটি বই অবশ্যই পড়বেন।
• মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ‘আমি বিজয় দেখেছি’ পড়তে পারেন।
• ‘বিশ্বরাজনীতির ১০০ বছর’ এবং ‘আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, সংগঠন ও পররাষ্ট্রনীতি’ বই দুটো পড়তে পারেন।

শিক্ষা সংক্রান্ত খবরাখবর নিয়মিত পেতে রেজিস্ট্রেশন করুন অথবা Log In করুন।

Account Benefit
৬) ৯-১০ম শ্রেণীর যে বিজ্ঞান বইটা আছে, খেয়াল করলে দেখবেন রিটেনের সিলেবাসের প্রায় ৭০ ভাগ টপিকস হুবহু এই বইটাই আছে। এটা ভাল করে পড়ে ফেলুন প্রিলি-রিটেন সব জায়গায় লাগবে।


নাজমুল আলম
সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (৩৫তম বিসিএস)
রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়

  • call for advertisement
Submit Your Comments:
  • Career @ Edu Icon
  • call for advertisement
  • ADDRESSBAZAR | YELLOW PAGE
  • Overseas Ambition Solutions Limited
  • call for advertisement
  • call for advertisement
  • RNR Bazar | Digital Marketing Agency
  • Personal Horoscope | Rashi12.com
  • call for advertisement
  • call for advertisement